গড়পাড়া ইমাম বাড়ির শতবর্ষী তাজিয়া মিছিল বের করার অনুমতি চেয়ে সংবাদ সম্মেলন

মোঃ আশরাফুল ইসলাম,মানিকগঞ্জ.

মানিকগঞ্জ সদর উপজেলার শত বছরের ঐতিহ্যবাহী গড়পাড়া ইমাম বাড়ির তাজিয়া মিছিল বের করার অনুমতি চেয়ে বৃহস্পতিবার দুপুরে ইমামবাড়ি প্রাঙ্গণে সংবাদ সম্মেলন করা হয়েছে।

সংবাদ সম্মেলনে তাজিয়া মিছিলের তাৎপর্য এবং গড়পাড়া ইমামবাড়ির ঐতিহ্যপূর্ণ ইতিহাস তুলে ধরেন খাদেম শাহ্ আরিফুর রহমান বাবু, শা্হ্ শাহজাদা রহমান বাঁধন এবং শাহজাদা তাজিনুর রহমান তাজ।

তারা বলেন, করোনা মহামারীর প্রাদুর্ভাবে গেল দু’বছর বন্ধ থাকার পর এবার যথাযোগ্য মর্যাদায় পবিত্র আশুরা পালনের উদ্যোগ নিয়েছে মানিকগঞ্জের গড়পাড়া ইমামবাড়ি। বিগত বছরগুলোর মতো এবারও ১০ দিনব্যাপী কার্যক্রম হাতে নেওয়া হয়েছে।

জেলা শহরে তাজিয়া মিছিল বের করার অনুমতি চেয়ে জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপারের কাছে আবেদন করেছে গড়পাড়া ইমামবাড়ি কর্তৃপক্ষ। এ ছাড়া শত বছরের ঐতিহ্যবাহী গড়পাড়া ইমামবাড়ির তাজিয়া মিছিলকে কৃষ্টি ও ঐতিহ্যের স্বীকৃতি দিতে সরকারের দৃষ্টি আকর্ষণ করেছেন তারা।

শাহ্ আরিফুর রহমান বলেন, “ ইয়াজিদের হাত থেকে ইসলামকে সঠিক পথে ফিরিয়ে আনার লক্ষ্যে অকাতরে জীবন উৎসর্গ করা ইমাম হোসাইন (রা.) এবং তাঁর পরিবার ও অনুসারীদের প্রতি গভীর শ্রদ্ধা, অকৃত্রিম ভালোবাসা ও সম্মান জানাতেই গত ১০০ বছর ধরে গড়পাড়া ইমামবাড়ির তাজিয়া মিছিল বের করা হয়ে আসছে। প্রতি বছরই যথাযথ মর্যাদায় পবিত্র আশুরা পালন করা হচ্ছে। তবে করোনা মহামারির কারনে গত দুই বছর মিছিল করা যায়নি।”

শাহ শাহজাদা রহমান বলেন, “ এবার গড়াপাড়া ইমামবাড়ি থেকে ১ মহররম কাসেদের দল বের হয়ে দেশের বিভিন্ন জেলায় অশ্রুসজল চোখে জারি, মর্সিয়া ও মাতমের মাধ্যমে ইমাম হোসাইন (রা.) এর মহান আত্মত্যাগের কথা ও শোক গাঁথা পরিবেশন করবে। সেই সঙ্গে ইমামবাড়িতে ১০ দিনব্যাপী পবিত্র কোরআন পাঠ, মিলাদ মাহফিল, ফাতেহা, জিয়ারত, নেয়াজ ও মর্সিয়া মাতম এবং আলোচনা অনুষ্ঠিত হবে।

আগামি ১০ মহররম (৯ আগস্ট) গড়পাড়া ইমামবাড়ি থেকে দুলদুল, তাজিয়া, কারবালা যুদ্ধের স্মৃতিবহনকারী লাল, কালো ও সবুজ নিশান এবং অন্যান্য সামানাসহ দেশের সর্ববৃহৎ শোক মিছিল জেলা শহরে বের হবে। জেলা শহর প্রদক্ষিণ শেষে মিছিলটি সরকারি দেবেন্দ্র কলেজের মাঠে অবস্থান নেবে এবং সেখানে ইফতার ও মাগরিবের নামাজ শেষে কারবালার শহীদদের আত্মার প্রতি শ্রদ্ধা জ্ঞাপন ও আশুরার তাৎপর্যের ওপর আলোচনা হবে।

শাহ তাজিনুর রহমান বলেন, “ জেলার অন্যতম কৃষ্টি ও ঐতিহ্য হচ্ছে গড়পাড়া ইমামবাড়ির এই তাজিয়া মিছিল। এই মিছিল সার্বজনীন, সকল মানুষ সম্মিলিতভাবে মিছিলে অংশ নেন। মিছিলে অংশ নিতে দেশের বাইরে থেকেও অতিথিরা আসেন। শত বছরের প্রাচীন গড়পাড়া ইমামবাড়ি জেলার কৃষ্টি ও ঐতিহ্যের স্বীকৃতির দাবি রাখে।”

এ ব্যাপারে পুলিশ সুপার মোহাম্মদ গোলাম আজাদ খাঁন বলেন, “ জেলা শহরে তাজিয়া মিছিলের অনুমতি দেওয়া হবে। একই সঙ্গে মিছিলে নিরাপত্তায় পুলিশ সদস্যরা নিয়োজিত থাকবে।”

Leave a Reply

Your email address will not be published.