ছাত্রকে বিয়ের ছয় মাসের মাথায় আত্মহত্যা করলেন সেই শিক্ষিকা খাইরুন নাহার

নিজস্ব প্রতিবেদক :
ফেসবুকে প্রেম করে নাটোরের ছাত্র মামুনকে বিয়ে করে সুখের সংসার গড়া খুবজীপুর এম হক ডিগ্রি কলেজের সহকারী অধ্যাপক খাইরুন নাহারের সংসার মাত্র ছয় মাসেই জীবনের পরিসমাপ্তি ঘটলো। রোববার (১৪ আগস্ট) তিনি আত্মহত্যা করেছেন বলে জানা যায়। অনেকের ধারণা হয়ত সমালোচনার কাছে হার মানলেন তিনি। কুটকথা আর সইতে না পেরেই এমন করেছেন নাকি এর পিছনে অন্য কারণ রয়েছে যা শীঘ্রই উন্মোচিত হবে প্রশাসনের হস্তক্ষেপে। এই সমাজ কিছু দেয় না কিন্তু কৈফিয়ত নেয়। সমাজের সমালোচকরা কি পারবে মেডামের জীবন ফিরিয়ে দিতে? পারবেনা। তারা তো সব জেনেশুনে ভালবেসে বিয়ে করে সুখী হতে চেয়েছিল কিন্তু সমালোচনার কাছে হয়ত তিনি হার মেনে নিজেকে লুকিয়ে নিলেন সবার থেকে। যদি সমালোচনার তোপের মুখে হয়ে থাকে তাহলে ক্ষমা করো বোন। ধিক্কার জানাই সমালোচকদের। আর যদি অন্য কিছু হয়ে থাকে তাহলে প্রকৃত তদন্ত সাপেক্ষে দোষীদের সনাক্ত করে তাদের কঠিন শাস্তি কামনা করছি।

ছাত্রকে বিয়ে করা শিক্ষিকা এখন কেবলই ইতিহাস।

Leave a Reply

Your email address will not be published.