নীলফামারীতে ব্যাটারি চালিত অটোরিকশা ও সিএনজও বন্ধের দাবিতে অনির্দিষ্ট কালের বাস ধর্মঘট

তপন দাস
নীলফামারী প্রতিনিধি

নীলফামারীতে ব্যাটারি ও সিএনজিচালিত অটোরিকশা বন্ধের দাবিতে সৈয়দপুর-নীলফামারী-ডোমার রুটে বাস চলাচল বন্ধ করে দিয়েছেন শ্রমিকরা। রোববার (২৮ আগস্ট) দুপুর ২টা থেকে ওই রুটে বাস চলাচল বন্ধ করে দেন পরিবহন শ্রমিকরা। এতে বিপাকে পড়েছেন রংপুর ও সৈয়দপুর থেকে ডোমারগামী যাত্রীরা।

রশিদ ইসলাম নামে এক যাত্রী বলেন, সকালে স্ত্রীকে নিয়ে বাসে করে রংপুর ভালোভাবেই গেলাম। এখন ডাক্তার দেখিয়ে ফেরার পথে সৈয়দপুর এসে দেখি ডোমারের বাস বন্ধ। কী আর করার, কষ্ট করে হলেও অটো বা সিএনজিতে করে বাড়ি ফিরতে হবে।

তিনি আরও বলেন, আমাদের ভোগান্তিতে ফেলতে বাসের শ্রমিকরা এটা ইচ্ছে করেই করছে।

এদিকে বাস শ্রমিকদের দাবি, ডিজেলের দাম বাড়ায় বাসের ভাড়া বেড়েছে। তবে আগের থেকেও কম ভাড়ায় অটোরিকশা চালকরা যাত্রী পরিবহন করছেন। এতে বাসে যাত্রী না ওঠায় তাদের তেলের দামই তোলা দায় হয়ে গেছে।

শফিকুল ইসলাম নামে এক শ্রমিক বলেন, সৈয়দপুর থানার সামনে থেকে ২০ টাকায় নীলফামারী ও ৫০ টাকায় ডোমার নিয়ে যাচ্ছে অটোরিকশা। এতে করে আমাদের বাসের ভাড়া বেশি হওয়ায় বাসে কেউ উঠছে না। এভাবে আমাদের তেলের খরচও উঠছে না।

ভাই ভাই পরিবহনের সুপারভাইজার আইয়ুব ইসলাম বলেন, একাধিকবার থানা ও আমাদের ইউনিয়নে অভিযোগ দিয়েছি। তারা কোনো ব্যবস্থা নেয়ই। আজ বাধ্য হয়ে আমরা এটা করেছি। এভাবে চললে স্ত্রী-সন্তান নিয়ে আমরা পথে বসবো।

বাস শ্রমিক কামাল হোসেন বলেন, যতদিন অটো-সিএনজি বন্ধ হবে না, ততদিন এই রুটে বাস চালাবো না।

নীলফামারী জেলা বাস-মিনিবাস শ্রমিক ইউনিয়নের সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুর রশীদ বলেন, সমিতির পক্ষ থেকে বাস চলাচল বন্ধের কোনো কথা বলা হয়নি। এখানে শ্রমিকরাই আন্দোলন করছে। অটো-সিএনজি বন্ধের জন্য তারা একাধিকবার প্রশাসন ও আমাদের কাছে বলেছে। তবে এটা তো আমাদের হাতে নেই। প্রশাসন বন্ধ করতে পারে, আমরা তো পারি না।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *