গ্রাহক সেবা প্রদানের নামে বাণিজ্য করছে খুলনা ওয়াসা!!

বিপ্লব সাহা খুলনা ব্যুরো চীফ :

প্রায় আড়াই হাজার কোটি টাকা ব্যয় করে ওয়াসা পানির সরবরাহ মেগা প্রকল্প বাস্তবায়ন করেছে। কিন্তু এতে পর্যাপ্ত সেবা মিলছে না। আমি ব্যক্তিগতভাবে একজন কাউন্সিলর হয় আবেদন করে ও বাড়ীতে সংযোগ পাইনি। কথিত ওয়ার্ড বসতি এলাকার অবস্থা আরো খারাপ। নগরীর পানি সংকট ও ব্যবস্থাপনা বিষয়ে এভাবে বলছেন খুলনা সিটি কর্পোরেশনের কেসিসি ৫ নম্বর কাউনসিলার শেখ মোহাম্মদ আলী।
বৃহস্পতিবার( ২৯ সেপ্টেম্বর দুপুরে) খুলনা কারিতাস মিলনায়তনে কেসিসি প্রান্তিকও সাধারণ মানুষদের নিরাপদ পানির দাবিতে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন।

সংবাদ সম্মেলনে একই সুরে কথা বলেন কেসিসির ৬ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর শামসুদ্দিন আহ্মেদ পৃন্স তিনি বলেন ওয়াসা আমার বাড়ির সামনে পর্যন্ত পাইপ নিয়েছে। কিন্তু সংযোগ এখনো দেয়নি।
আমি তখন বিষয়টি তাদের জানালে তারা বলছিল দিবে। পরবর্তীতে বলে প্রথম পর্যায়ে কাজ শেষ দ্বিতীয় পর্যায়ে দিবে। এরপর করোনা শুরু হয় এখনও সংযোগ দেয়নি।

সংবাদ সম্মেলনে বক্তারা বলেন আমাদের আন্দোলনের ফসল খুলনা ওয়াসা। ভেবেছিলাম তারা যথাযথ সেবা প্রদান করবে। কিন্তু এখন সেই সেবা পাচ্ছে না নগরবাসী।

সংবাদ সম্মেলনে আরো অভিযোগ করে বলা হয় খুলনা ওয়াসা সেবা প্রদান নয় বাণিজ্য করছে। সেবার মান না বাড়ালেও ইউনিট প্রতি পানির দাম বাড়িয়েছে তারা।

সংবাদ সম্মেলনে পানির সংকট নিরসনের বস্তি এলাকা ঘরে ঘরে পানির সংযোগ প্রদান কমিউনিটি ট্যাব স্থাপন নষ্ট টিউবওয়েল গুলো সংস্কার পানি এটিএম বুথ স্থাপন নিয়মিত পানি ও স্বাস্থ্য পরীক্ষা সহ ১০ দফা বাস্তবায়নের জন্য দাবি জানানো হয়

নগরীর ৫ ও ৯ নম্বর ওয়ার্ড কে মডেল হিসেবে গড়ে তুলতে নাগরিক সংগঠন সিএস নেটওয়ার্ক শুভশক্তি ও যুবসমাজ যৌথভাবে এই সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করে।

সংবাদ সম্মেলনে বলা হয় নগরীতে পানির অব্যবস্থাপনার কারণে সাধারণ মানুষের জীবনযাত্রা ব্যাহত হচ্ছে। বস্তি এলাকায় নলকূপের পানি উঠছে না। তারা পানি কিনে ব্যবহার করতে পারছে না। এতে নারী-শিশুসহ নানান বয়সীদের শারীরিক ও মানসিক সমস্যা হচ্ছে। রোগ শোকে তাদের কর্মদক্ষতা নষ্ট হচ্ছে। এমন অবস্থায় পানি সংকট নিরসনে সিটি কর্পোরেশন ওয়াসা কেডিএ কে সমন্বিতভাবে কাজ করতে হবে। পানির সংযোগ আইন শিথিল করতে হবে।

সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য দেন নাগরিক নেতা মিনা আজিজুর রহমান উন্নয়নকর্মী মেহেদি হাসান নাজমুল আযম ডেভিড আবু শহীদ ঝর্ণা আক্তার বৃষ্টি শরীফ শাকিল বিন আলম প্রমুখ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *