আজ মহানবমীর দিনে উপজেলার সব পূজা মন্ডপ পরিদর্শন করলেন ভেড়ামারা থানার ওসি গোলাম মোস্তফা।

ভেড়ামারা প্রতিনিধি :

হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের জন্য সবচেয়ে বড় উৎসব শারদীয় দূর্গাপুজা। দুর্গাপুজার আজ মঙ্গলবার মহানবমীর দিনে কুষ্টিয়া জেলার ভেড়ামারা উপজেলার সকল পুজামন্ডপ পরিদর্শন করেছেন ভেড়ামারা থানার অফিসার ইনচার্জ গোলাম মোস্তফা। এবছর ভেড়ামারা উপজেলার জগৎ জননী মাতৃমন্দিরসহ মোট ৯টি মন্ডপে উৎসবমূখর পরিবেশে পুজা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। অফিসার ইনচার্জ গোলাম মোস্তফা সঙ্গীয় অফিসার ও ফোর্সসহ একযোগে পৌর এলাকাসহ প্রত্যন্ত অঞ্চলের ৯টি পুজামন্ডপই ঘুরে ঘুরে দেখেন এবং সেখানকার পুরোহিতসহ মন্দির ও পুজা উদযাপন কমিটির নেতৃবৃন্দের সাথে মত বিনিময় করেন। পরিদর্শনকালে তিনি মন্ডপে মন্ডপে নিয়োজিত আইনশৃঙ্খলার কাজে নিয়োজিত কর্মকর্তা ও সদস্যদেরকে বিশেষ নির্দেশনা প্রদান করেন। এসময় ওসি গোলাম মোস্তফা সংবাদ মাধ্যমকে বলেন, উপজেলার সব মন্ডপেই শান্তিপূর্ণ পরিবেশে দুগোর্ৎসব উদপানের জন্য আগাম ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। মহালয়া থেকে শুরু করে দেবি দূর্গার বিসর্জন পর্যন্ত সমস্ত আয়োজনে নিরাপত্তা দেবে পুলিশ।এখন পর্যন্ত উপজেলার কোন মন্ডপ থেকে কোনরুপ অপ্রীতিকর ঘটনার সংবাদ পাওয়া যায়নি। তিনি আশা প্রকাশ করে বলেন, মোটামুটি নির্বিঘ্নে ও সন্তোষজনক পরিবেশে এই উৎসবে সামিল হতে পারছেন সংশ্লিষ্ট ধর্মগোষ্ঠীর লোকেরা। উল্লেখ্য আজ মহানবমী। নবমীর দিন হচ্ছে দেবী দূর্গাকে প্রাণ ভরে দেখে নেওয়ার দিন। তাই এই দিনে মন্ডপে সবথেকে বেশি দর্শনার্থীদের উপস্থিতি ঘটে। কার্যত এই দিনই দূর্গা পুজার অন্তিম দিন। পরের দিন বুধবার কেবল বিজয়া ও বিসর্জনের পর্ব। বিভিন্ন মন্ডপ পরিদর্শনকালে ভেড়ামারা থানার অফিসার ইনচার্জের সাথে পুজামন্ডপ পরিদর্শনরত ভেড়ামারা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আক্তারুজ্জামান মিঠু, ভেড়ামারা উপজেলা নির্বাহী অফিসার দীনেশ সরকার, ভেড়ামারা পৌরসভার মেয়র আনোয়ারুল কবির টুটুল এবং ভেড়ামারা উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম সাধারন সম্পাদক, বিশিষ্ট সমাজসেবক আব্দুল আজিজের সাক্ষাৎ ঘটে। এসময় উৎসবে বাড়তি মাত্রার সংযোজন ঘটে। জনপ্রতিনিধি, কর্মকর্তা ও নেতৃবৃন্দের সাথে ফটোসেশনে অংশ নেন ওসি।এসময় ওসি গোলাম মোস্তফা সংবাদ মাধ্যমকে আরো বলেন, কেউ কোনস্থানে কোনরুপ আইনভঙ্গের অপচেষ্টা করলে তা কোন অবস্থাতেই বরদাস্ত করা হবেনা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *