লাগামহীন ভাবে বেড়ে চলেছে নিত্যপণ্যের দাম দিশেহারা মধ্যম থেকে নিম্ন আয়ের মানুষ

খুলনা জেলা প্রতিনিধি, বিপ্লব কুমার সরকার

দিনদিন লাগামহীন ভাবে বেড়ে চলেছে নিত্যপণ্যের দাম এতে করে মধ্যম থেকে নিম্ন আয়ের মানুষেরা হয়ে পড়েছে দিশাহারা চরম অসহায়ের মধ্যে কাটছে তাদের জীবন যাপন প্রতিনিয়ত লাগামহীন ঘোড়ার দৌড়ের মতোন যে ভাবে নিত্য পণ্যের দাম বেড়ে চলেছে তাতে করে শহরে বসবাসকারী মধ্যম থেকে নিম্ন পরিবারের অবস্থা দিন দিন জেন নাজেহাল হয়ে পড়ছে এতে করে এক প্রকার হতাশার মধ্যে কাটছে তাদের দিন।
শহরে বসবাসকারী কয়েকজন ব্যক্তির কাছে বর্তমান বাজার দ্রব্যমূল্যের ব্যপারে জানতে চাইলে তারা এক প্রকার মনের ক্ষোভের কথা বলেন তাদের ভাস্য মতে যেভাবে নিত্যপণ্যের দাম দিনদিন বেড়ে চলেছে তাতে করে আমাদের শহরে বসবাস করাই দুসাধ্য হয়ে দাড়িয়েছে। তারা আরো বলেন আমরা শহরে যারা বসবাস করছি প্রায় মানুষই কোন না কোন প্রতিষ্ঠানে কর্মরত আছে তাতে করে দ্রব্যমূল্যের দাম যে ভাবে বৃদ্ধি পাচ্ছে আমাদের বেতন সেভাবে বৃদ্ধি পাচ্ছে না এতে এখন জীবন চালানোই কষ্টের ব্যপার হয়ে দাড়িয়েছে।
অন্যদিকে শহরে বাসবাসকারী মোঃ শামীমের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন যে ভাবে নিত্যপণ্যের দাম বেড়ে চলেছে তাতে করে কী ভাবে চলবো ভাবতে পারছি না আমার এক ছেলে এক মেয়ে দুইজনই কলেজে পড়ে তাদের পড়াশোনা খরচ চালানো নিজের একটা খরচতো আছেই তারপর রয়েছে ঘর ভাড়া এতে করে প্রতিনিয়ত হিমশিম খেতে হচ্ছে ভাবতে পারছি না আগামীতে কোন পরিস্থিতিতে পড়তে হবে সামান্য কয়েক টাকার চাকরি করে সংসার চালাতে হিমশিম খেতে হচ্ছে।
অন্যদিকে আরেক জনৈক ব্যক্তি মোঃ মনিরুল ইসলাম মনি বলেন বাজারে গিয়ে যে খিরোই গত এক মাস আগে কিনেছি ৩০ টাকায় বর্তমান বাজারে তা কিনতে হচ্ছে ৮০ টাকায়, ডিমের হালি ৫২ টাকা শুকনো ঝালের গুঁড়ো ১০০ গ্রাম ১০০ টাকা আর বাচ্চাদের খাবারের কথাতো বাদইদিলাম। এভাবে চলতে থাকলে আমাদের টিকে থাকা কষ্ট সাধ্য হয়ে দাড়াবে।
অপরদিকে সরকার যথাসাধ্য চেষ্টা করে যাচ্ছে দ্রব্যমূল্যর বাজার নিয়ন্ত্রনে তাতেও যেন কোনো ভাবেই থামানো যাচ্ছে না বাজারে নিয়ন্ত্রণ। এখন থেকে এর যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ না করা হয় তাতে করে দিশেহারা হয়ে পড়বে মানুষ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *