কাতারের উদ্বোধনী ম্যাচের মাধ্যো দিয়ে আজ পর্দা উঠছে বিশ্বকাপ ফুটবল-২০২২ এর

বিপ্লব সাহা খুলনা ব্যুরো চীফ :

এক যুগের প্রস্তুতিতে অবকাঠামোর দিক দিয়ে ধারণ করেছে কাতার বিশ্বকাপ আয়োজনের প্রস্তুতিতে তারা লেটার মার্কস এর চেয়েও বেশি পাওয়ার দাবিদার। কিন্তু মাঠে ফুটবলের পারফরমেন্সের প্রশ্ন আসলেই ভাবতে হচ্ছে অনেক কিছু। আয়োজক হিসেবে তারা প্রথমবার সুযোগ পেয়েছে বিশ্বকাপ খেলার। এটা কেবল সুযোগ পাওয়ার জন্য পাওয়া নয়। এবার ময়দানে লড়াই দেখানোর পালা। এ লড়াই যে মর্যাদার লড়াই। নিজেদের ফুটবলের উন্নতি বিশ্বকে দেখানোর লড়াই। তাই কাতার ফুটবল এসোসিয়েশন ও আয়োজক কমিটির অনুরোধক্রমে একদিন আগে পদ্মা উঠছে বিশ্বকাপ ফুটবলের। যদিও ২১ নভেম্বর বিশ্বকাপ ফুটবল খেলার উদ্বোধনীয় দিন নির্ধারণ থাকলেও নিয়ম সন্ধিক্ষণ ঠিক রেখে একদিন আগে আজ ২০ নভেম্বর আয়োজক কমিটি হিসেবে ফুটবল দল কাতার কে প্রথম উদ্বোধনী ম্যাচে খেলার সুযোগ করে দিয়েছে বিশ্ব ফুটবল অ্যাসোসিয়েশনের কর্তা ফিফা।

অন্যতম বিশ্বসেরা ছন্দ মাতানো ফুটবলের নৈপুণ্য কৌশলের পরশ নিয়ে একদল বিশ্ববরেণ্য ফুটবলারদের মিলন মেলায় কাতারের ৯ টি স্টেডিয়ামে মেতে উঠছে ফিফার আয়োজনে বিশ্বকাপ ফুটবল ২০২২ এর জমকালো অনুষ্ঠানের মধ্যো দিয়ে পর্দা উঠছে আজ রাত ১০ টায় ।
তবে কাতার বিশ্বকাপে শূণ্যতা থাকছে ফটবলের রাজা কালোমানিক অর্থাৎ পেলে এবং ফুটবলের যাদুকর দিয়াগো ম্যারাডোনার। ফুটবলের এই দুইজন দেবদূত কে চিরস্বরনে রেখে মাঠে নামবে ফুটবল যোদ্ধারা।
এতে অংশগ্রহণ করছে বিভিন্ন গ্রুপে বিভক্ত হয়ে মোট ৩২ টি দল।

তবে ২১ নভেম্বর কাতার দলের বিশ্বকাপ খেলার মিশন শুরু হওয়ার কথা থাকলেও আয়োজক দেশ হিসেবে উদ্বোধনী ম্যাচ খেলা দিয়ে মিশন শুরুর আবেদন করে দলটি বিশ্ব ফুটবল আয়োজক কমিটির ফিফা বরাবর। আর তাতে করে সম্মতি জানিয়ে কাতার ফুটবল দলের প্রথম যাত্রা স্বপ্ন পূরণের সহযোগিতা করেন ফিফা।

এতে করে আজ ২০ নভেম্বর উদ্বোধনী দিনের প্রথম খেলায় বিশ্বকাপ ফুটবল মাতাতে মাঠে নামছে রাত ১০ টায় ইকুয়েডরের বিরুদ্ধে যদিও কাতারের জন্য প্রথম বিশ্বকাপ পদযাত্রা কিন্তু ইকুয়েডরের তৃতীয় বারের অভিজ্ঞতা নিয়ে মাঠে নামছে তারা। যদিও তরুণ দল হিসেবে নতুন মাঠে নামছে কাতার তবুও তাদের তীব্রতা উদিয়মান প্রতিভাবান তরুণ রয়েছে এই দলে। তারা পাল্টে দিতে পারেন ম্যাচের গতিপথ। এই দিকটাই তাদের শক্তিমত্তা জায়গা আর দুর্বলতার জায়গার ইকুয়েডরের যা ট্রাইকালাররা সবশেষে পাঁচটি প্রীতি ম্যাচে খুব বেশি গোল হজম করেনি আবার গোল দিতেও পারেনি খুব বেশি তাদের এই ফিনিশিং দুর্বলতা কাতারের বিপক্ষে কাটিয়ে উঠতে পারবে কিনা দেখার বিষয়।

অন্যদিকে কাতার কে আয়োজক কোটার দল হিসেবে ভাবলে ভুল করবেন। তাদের সাম্প্রতিক পারফরমেন্সে কিন্তু স্বমিয় হওয়া মত তারা এশিয়ার বর্তমান চ্যাম্পিয়ন তার। মানে তারা উত্তর করিয়া সৌদি আরব জাপান দক্ষিণ কোরিয়ার মত হেভিওয়েট দল গুলোকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে। এ ছাড়া
কেনকেকা গোল্ডকাপে তারা সেমিফাইনালে খেলেছিল তাদের আলেম আলী গোল্ডকাপের সর্বোচ্চ গোলদাতা হয়েছিলেন পাঁচ গোলে সর্বোচ্চ গোলদাতা হয়েছিলেন এশিয়ান কাপে ও ৯ গোল।

২০১৭ সাল থেকে কাতারের এই দলটি একসঙ্গে আছে তাদের কোচ হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন ফেলিক্স সানচেজ।এখন দেখার বিষয় ইকুয়েডরের বিপক্ষে আকরাম আফিফ আল ফয়েজ আলিরাজ জ্বলে উঠতে পারেন কিনা মর্যাদা রক্ষায় ।

সব শেষ পাঁচটি আন্তর্জাতিক প্রিতি ম্যাচের পাঁচটিতেই জিতেছে কাতার তারা গোল করেছে আটটি গোল হজম করেছে দুইটি সবশেষে নয় নভেম্বর তারা এক শূন্য গোলে হারায় আলোবনিয়াকে। অন্যদিকে ইকুয়েডর তাদের সব শেষ পাঁচ ম্যাচে জিতেছে মাত্র একটি তে এক শূন্য গোলে হারিয়েছে বাকি চারটি ম্যাচ হয়েছে ড্র গোল শূন্য ড্র।
মুখোমুখি লড়াইয়ে অবশ্য দুটি দল সমানে সমান তিন ম্যাচে খেলে উভয় দলের জয় একটি করে গোল ও সমান ছয়টি করে ফিফা র্্যাংকিংএ ও তারা কাছাকাছি কাতার ৫০- ইকুয়েডর ৪৪।

তবে ঘরের মাঠে খেলা হওয়ায় কিছুটা সুবিধা জনক অবস্থানে থাকবে কাতার। উদ্বোধনী ম্যাচের ভেন্যু আল বায়াত ষ্টেডিয়ামে এর আগে তিন ম্যাচ খেলে তিনটিতেই জিতেছে তারা। চেনা পরিবেশ চেনা মাঠ চেনা দর্শকদের সামনে অল্প চেনা ইকুয়েডরকে কাতার তাদের নৈপুণ্যতা ও কৌশলে কুপোকাত করতে পারে কিনা সেইটা আজ দেখার বিষয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *